বনপাড়ায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

1 10

নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়ায় স্ত্রী চাম্পা খাতুনকে হত্যার দায়ে স্বামী শাহীন মন্ডলকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে নাটোরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শরীফ উদ্দিন এই আদেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত শাহীন মন্ডল উপজেলার তেলো পশ্চিমপাড়া এলাকার রইচ উদ্দিন মন্ডলের ছেলে।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, বনাপাড়া কালিকাপুর গ্রামের আফছার মিয়াজীর মেয়ে চাম্পা খাতুনের সাথে ২০১৫ সালের জুলাই মাসে বিবাহ হয় একই উপজেলার তেলো পশ্চিমপাড়া মহল্লার রইচ উদ্দিন মন্ডলের ছেলে শাহীন মন্ডলের।

বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে স্বামী শাহীন মন্ডল ও তার পরিবারের সদস্যরা। স্ত্রী চাম্পা খাতুন তাদের চাহিদা মাফিক যৌতুক তার বাবার কাছ থেকে এনে দিতে অস্বীকার করে।

এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই বিরোধ সহ মারধরের ঘটনা ঘটতো। এর এক পর্যায়ে গত ২১ জানুয়ারী ২০১৬ সাল সকালে মেয়েকে মেরে ঘরের মধ্যে রেখে দিয়েছে বলে মেয়ের প্রতিবেশীদের মাধ্যমে সংবাদ পায় চাম্পার বাবা আফছার মিয়াজী।

পরে মেয়ের বাড়ীতে গিয়ে ঘরের মধ্যে মেয়ের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে তারা। এরপরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় নিহত চাম্পা খাতুনের বাবা আফছার মিয়াজী বাদী হয়ে মেয়ের স্বামী শাহীন মন্ডল ও তার শ্বশুড় ,শ্বাশুড়ীকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে চাম্পা খাতুনের শ্বশুড় ও শ্বাশুড়ীর নাম বাদ দিয়ে শুধুমাত্র স্বামী শাহীন মন্ডলের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন আদালতে।

দীর্ঘ কয়েক বছর মামলার স্বাক্ষ্য প্রমাণ গ্রহণ শেষে আদালতের বিচারক শাহীন মন্ডলকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দেন।

  1. israel-lady.co.il says

    Im very pleased to find this site. I need to to thank you for ones time for this particularly fantastic read!! I definitely really liked every part of it and I have you bookmarked to see new information on your site.

Leave A Reply

Your email address will not be published.