সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতারে নিতে হবে পূর্বানুমতি

কাওসার আহমেদ.

0 22

সংসদে বিল পাস হলো সরকারি কোনো কর্মচারীদের গ্রেফতার করার আগে অনুমতি নিতে হবে। নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আগে অনুমতি নিয়ে তবেই কোনো সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের গ্রেফতার করতে পারবে।

তার আগে কোনোভাবেই তাদের গ্রেফতার করা যাবে না। এমনই এক আইন পাস হয়েছে জাতীয় সংসদে। গত ৪ জুলাই সংশোধনী আইন-২০২৩ এই নতুন আইনটি পাশ করা হেয়।

এতে স্বশাসিত সংস্থা, রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান এবং স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত কর্মচারীদের বেতন-ভাতা, অবসর সুবিধা সরকারি চাকরি আইনের আওতায় আনা হয়েছে।

এদিকে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়িয়ে ৩৫ বছর করার দাবি জানান স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম। তিনি বলেন, বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে ৫৯ বছর পর্যন্ত চাকরির বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে একেবারে নিম্ন পর্যায়ে আছে। বয়সসীমা ৩৫ বছর করা হলে বেকার সমস্যা লাঘব হবে।

বিলটি জাতীয় সংসদে পাসের জন্য তোলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। বিলের ওপর আনা জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাবগুলো নিষ্পত্তি শেষে বিলটি কণ্ঠভোটে সংসদে পাস হয়।

এ আইনের ব্যাপারে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান বলেন, এ আইন স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হবে।

তিনি বলেন, ফৌজদারি মামলায় অভিযোগ গঠনের আগে যে কাউকে গ্রেফতার করা হয়। এজন্য কারও অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। কিন্তু সরকারি কর্মচারীদের অভিযোগ গ্রহণের আগে গ্রেফতার করা যাবে না। এটা আইনের চোখে সবাই সমান এ নীতির পরিপন্থি।

মন্তব্য করুন।

আপনার মেইল প্রকাশিত হবে না।